১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২৫শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে পাকিস্তানের সিরিজ জয়

    শনিবার (০২ এপ্রিল) রাতে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে ৯ উইকেটে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ জিতে নিয়েছে স্বাগতিকরা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঘরের মাঠে প্রথম ওয়ানডেতে ৮৮ রানে হার মানে পাকিস্তান। পরের ম্যাচে ইমাম-উল-হক ও বাবর আজমের সেঞ্চুরিতে ভর করে অস্ট্রেলিয়ার ছুড়ে দেওয়া ৩৪৯ রানের টার্গেট ছুঁয়ে সিরিজে সমতা ফেরায় তারা। এই ম্যাচেরও নায়ক বাবর ও ইমাম।

    টস হেরে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়াকে প্রথমে ৪১.৫ ওভারে ২১০ রানে অলআউট করে বাবরবাহিনী। এরপর বাবরের অপরাজিত ১০৫ ও ইমামের অপরাজিত ৮৯ রানের ইনিংসে ভর করে ৩৭.৫ ওভারেই জয় তুলে নেয়। নিশ্চিত করে সিরিজ।

    লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২৪ রানেই ফখর জামানের উইকেট হারায় ওয়াকার ইউনুসের শিষ্যরা। সেখান থেকে জুটি গড়েন ইমাম-উল ও বাবর। তারা দুজন ১৯০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। ইমাম ১০০ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় অপরাজিত ৮৯ রান করেন। আর বাবর ১১৫ বলে ১২ চারে অপরাজিত থাকেন ১০৫ রানে। এটা ছিল তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৬তম সেঞ্চুরি। যা পেয়েছেন মাত্র ৮৪তম ইনিংসে।

    পাকিস্তানের একমাত্র উইকেটটি নিয়েছেন নাথান এলিস।

    তার আগে পাকিস্তানের বোলারদের বোলিং তোপে ২১০ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। বল হাতে পাকিস্তানের হ্যারিস রউফ ও মোহাম্মদ ওয়াসিম ৩টি করে উইকেট নেন। ২টি উইকেট নেন শাহীন আফ্রিদি।

    ব্যাট হাতে অস্ট্রেলিয়ার আলেক্স ক্যারি ৫৬, শন অ্যাবোট ৪৯, বেন ম্যাকডারমট ৩৬ ও ক্যামেরন গ্রিন ৩৪ রান করেন। বাকিদের কেউ দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে পারেননি।

    ম্যাচ ও সিরিজ সেরা হন বাবর আজম।

    সংক্ষিপ্ত স্কোর:

    অস্ট্রেলিয়া: ২১০/১০ (ক্যারি ৫৬, অ্যাবোট ৪৯; রউফ ৩/৩৯, ওয়াসিম ৩/৪০)।

    পাকিস্তান: ২১৪/১ (বাবর ১০৫*, ইমাম ৮৯*; এলিস ১/৩৮)।

    ফল: পাকিস্তান ৯ উইকেটে জয়ী

    ম্যাচসেরা: বাবর আজম

    সিরিজ সেরা: বাবর আজম।

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর