২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১৪ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করলেন

    চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করেছেন । বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় সংসদে সশরীরে উপস্থিত হয়ে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি।

    এর মধ্য দিয়ে বিএনপি দলীয় সব সংসদ সদস্যের পদত্যাগ নিশ্চিত হলো। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন সদ্য পদত্যাগ করা সাবেক সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন ও জিএম সিরাজ।

    পদত্যাগপত্র জমা দিয়ে হারুন অর রশীদ বলেন, দলীয় সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং সরকারের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনকে আরও বেগবান করতে পদত্যাগ করেছি। এর আগে গত মঙ্গলবার রাতে হারুন অর রশীদ অস্ট্রেলিয়া থেকে ঢাকায় ফিরেন। দেশে ফিরে সকালে সশরীরে স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি।

    হারুনুর রশীদ  বলেন, বর্তমান সংসদ মহাজোট সরকারের দলীয় কার্যালয়ে পরিণত হয়েছে। এ সংসদকে অবিলম্বে বিলুপ্ত করতে হবে এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে।

    তিনি বলেন, সরকার ফাঁকা মাঠে গোল দিতে চায়। বিএনপি ও তার জোটসঙ্গীরা আগামী নির্বাচনে অংশ না নিলে দেশে কোনো অর্থবহ নির্বাচন হবে না।

    ১১ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করেন বিএনপির ছয়জন এমপি। সেদিন বিএনপির সাত সংসদ সদস্য পদত্যাগপত্র জমা দিলেও এমপি হারুন বিদেশে থাকায় তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি স্পিকার।

    আব্দুস সাত্তার অসুস্থ থাকায় এবং হারুনুর রশীদ বিদেশে থাকায় নিজেরা উপস্থিত হয়ে পদত্যাগপত্র জমা দিতে যেতে পারেননি। তাদের পক্ষে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা পদত্যাগপত্র জমা দেন। এরপর ওইদিন সশরীরে উপস্থিত থাকা ৫ এমপির পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়। একইদিন যাচাইবাচাই শেষে আব্দুস সাত্তারের পদত্যাগপত্রও গৃহীত হয়। বিদেশে অবস্থান করায় স্ক্যান করা স্বাক্ষরে পদত্যাগপত্র জমা দেয়ায় নিয়মানুযায়ী হারুন অর রশিদেরটি গৃহীত হয়নি। তাই দেশে ফিরে আজ স্পিকার বরাবার পদত্যাপপত্র জমা দিলেন বিএনপির এই সংসদ সদস্য।

    ১০ ডিসেম্বর গোলাপবাগ মাঠে আয়োজিত ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশ থেকে ই-মেইল যোগে স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র পাঠানোর কথা জানান বিএনপির সাত এমপি। তারা হলেন- আমিনুল ইসলাম (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২), হারুনুর রশীদ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩), জাহিদুর রহমান (ঠাকুরগাঁও-৩), মোশাররফ হোসেন (বগুড়া-৪), জি এম সিরাজ (বগুড়া-৭), আব্দুস সাত্তার (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২) ও রুমিন ফারহানা (সংরক্ষিত নারী আসন)।

    এরপর ১১ ডিসেম্বর দুপুরে শূন্য ঘোষিত ওই ছয়টি আসনের মধ্যে পাঁচটির সদস্য সশরীরে গিয়ে স্পিকারের কাছে ছয়জনের পদত্যাগপত্র জমা দেন। তবে এমপি হারুন ই-মেইলে পদত্যাগপত্র পাঠানোয় সেদিন তার আবেদন গ্রহণ করেননি স্পিকার।

    মাহফুজা ২২-১২

     

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর