১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২৫শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জেতা হলো না টাইগারদের

    শেষ টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে আফগানিস্তান। সিরিজটি ড্র হয়েছে ১-১। এর আগে কখনো আফগানদের বিপক্ষে সিরিজ জেতেনি বাংলাদেশ, আজ সুযোগ পেয়েও হাতছাড়া করল মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দল।

    বাংলাদেশের দেওয়া লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় আফগানিস্তান। এরপর উসমান-জাজাইয়ের ব্যাটে প্রতিরোধ গড়ে দলটি। ৯৯ রানের জুটি গড়ে দুজনে জয়ের ভিত গড়ে দেন। তবে বেশ কয়েকটি ক্যাচ হাতছাড়া না হলে গল্পটি ভিন্ন হতো। জাজাই ৫৯ রান করে অপরাজিত ছিলেন। উসমান ৪৭ রান করে আউট হন শেষ দিকে। বাংলাদেশের হয়ে ১টি করে উইকেট নেন মেহেদি ও মাহমুদউল্লাহ।

    টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বিব্রতকর ব্যাটিং ৯ উইকেট হারিয়ে ১১৫ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে ১৪ বল হাতে রেখে ২ উইকেটে হারিয়ে জয় তুলে নেয় সফরকারীরা।

    আফগানিস্তান সিরিজের শেষ ম্যাচেটা ব্যাট বল কিংবা ফিল্ডিংয়ে রাঙ্গাতে পারেনি বাংলাদেশ।  হতাশ হয়েছে টাইগার ভক্তরা।

    বিপএলএ ব্যাট হাতে মুনিম শাহরিয়ার ঝড় তুললে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেকে ১৭ রান করলেও দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে চার রানে ফেরেন ।

    গত ম্যাচে ব্যাট হাতে রাঙ্গানো  লিটন দাস ফেরলেন দলীয় ২২ রানে।  ১৩ রান করে রান আউট হলেন নাঈম ।  দলীয় ৪৫ রানে সাকিব সাজঘরে ফেরলে চাপে পরে বাংলাদেশ।

    এরপর বাউন্ডারি-ওভার বাউন্ডারি মেরে রানের চাকা সচল করেন মুশফিকুর রহিম-মাহমুদউল্লাহ।

    দুজনের জুটি থেকে আসে ৩১ বলে ৪৩।  টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশি হিসেবে ২ হাজার রান করেন মাহমুদউল্লাহ। রশিদ খানের কাছে ধরা দেন অধিনায়ক।

    দলীয় ৯৯ রানে মুশফিক ফিরলে আর কেউ রানের গতি বাড়াতে পারেনি । শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ১১৫ রানে থামে টাইগাররা

    জবাবে ব্যাট করতে নামলে দলীয় চার রানে রহমানউল্লাহ গুরবাজকে সাজঘরের পথ দেখান মিরাজ।

    এরপরই টাইগার বোলারদের উপর চড়াও হয় আফগান ব্যাটসম্যান হজরতউল্লাহ জাজাই ও ওসমান গনি।  দলীয় ১০৩ রানে গনি ফেরলেও জয়ের কোন বাধা হয়নি।  দুই ওভার দুই বল হাতে রেখেই জয়ের বন্ধরে পৌছে যায় সফরকারীরা।

    একাদশে মুশফিক, বাদ ইয়াসির

    চোট মুক্ত হয়ে বাংলাদেশ একাদশে এসেছেন মুশফিকুর রহিম, বাদ পড়েছেন ইয়াসির আলী।

    মুনিম শাহরিয়ার, লিটন দাস, নাঈম শেখ, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, মেহেদি হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ও নাসুম আহমেদ।

    আফগানিস্তান একদাশ

    আফগান একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন মুজিব উর রহমান ও কাঈস আহমেদ।

    রহমানউল্লাহ গুরবাজ, হজরতউল্লাহ জাজাই, নাজিবউল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নবী (অধিনায়ক), রশিদ খান, আজমতউল্লাহ ওমরজাই, ওসমান গনি, করিম জানাত, ফজল হক ফারুকি, শরফুউদ্দিন আশরাফ ও দারউইশ রাসুলি।

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর