১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২৭শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২৬শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    এখ লাখ ইউক্রেনীয় প্রস্তুত কিয়েভের রুশ বহর ঠেকাতে

    ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের অভিমুখে অগ্রসরমান রুশ সেনাবাহিনীর দীর্ঘ বহরটি কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বহরটি এখন কিয়েভ থেকে মাত্র প্রায় ১৫ মাইল উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থান করছে।

    ইউক্রেনে রুশ হামলার সপ্তম দিনে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ খেরসন শহরটি রুশ সেনাদের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।  খারকিভসহ আরও কয়েকটি শহরে হামলার প্রস্তুতি চলছে।

    যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বেসরকারি মহাকাশ প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান মাক্সার টেকনোলজিস দাবি করেছে, কিয়েভের উত্তরে সেনাসমাবেশ ক্রমাগত বাড়িয়ে যাচ্ছে রাশিয়া। সেখানে রুশ সেনাবাহিনীর প্রায় ৪০ মাইল দীর্ঘ একটি বহর জড়ো হয়েছে। গত সোমবার স্যাটেলাইটে এমন চিত্র ধরা পড়েছে বলে দাবি প্রতিষ্ঠানটির।  এর মধ্যই বিবিসি খবর দিয়েছে, রুশ বহরটি কিয়েভ থেকে মাত্র ১৫ মাইল দূরত্বে অবস্থান করছে।

    ইউক্রেনের উপ-প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা স্বিতলানা জালিশচুক কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে বলেছেন, রাশিয়ার চাপিয়ে দেওয়া যুদ্ধে ইউক্রেনীয়রা একটু ভীত-সন্ত্রস্ত, কিন্তু তারা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।’

    পশ্চিম ইউক্রেনের শহর বেরেগোভো থেকে তিনি আল-জাজিরাকে বলেন, কোনোভাবেই পুতিন (রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট) থামছেন না। তার সেনাবহর অগ্রসর হচ্ছে। তাদের অগ্রগতি থামাতে আমরাও প্রস্তুত। গঠিত হয়েছে আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা ইউনিট। সেখানে প্রায় এক লাখ নতুন সদস্য যোগ দিয়েছে। যদিও তারা সবাই বেসামরিক।নিজ ভাইয়ের উদাহরণ টেনে জালিশচুক বলেন, তিনি একজন ব্যবসায়ী। সেনাবাহিনীর সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। কিন্তু তিনি বন্দুক হাতে তুলে নিয়েছেন। রাজধানী কিয়েভের প্রবেশদ্বারের একটি শহর রক্ষা করতে গেছেন।

    এদিকে, মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তরের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা সিএনএন-কে জানিয়েছেন, রাজধানী কিয়েভের কাছাকাছি অবস্থান করছে বিশাল রাশিয়ান কনভয়। তারা যেন থমকে গেছে। সেখানে ভয়ঙ্কর যুদ্ধের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

    মঙ্গলবার রাজধানী কিয়েভের কেন্দ্রস্থলে একটি টিভি টাওয়ারে রকেট হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। হামলায় কমপক্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ।

    প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, খারকিভেও রুশ বাহিনী গোলা হামলা জোরদার করেছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার শহরের কেন্দ্রস্থলে রকেট হামলা হয়েছে। এ ঘটনাকে ‘খোলামেলা, সুস্পষ্ট সন্ত্রাস’ বলে উল্লেখ করেছেন ইউক্রেনীয় ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি আরও বলেন, ‘কেউ ক্ষমা করবে না। কেউ ভুলতে পারবে না। খারকিভে চালানো এ হামলা যুদ্ধাপরাধ।’

    কর্তৃপক্ষ বলেছে, খারকিভে রুশ হামলায় কমপক্ষে ১১ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন।

    গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এই যুদ্ধে এ পর্যন্ত ৩৫২ জন নিহত হয়েছেন বলে দাবি ইউক্রেনের। আহত হয়েছেন ১৬৮৪ জন।

    তবে জাতিসংঘ জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ১৩৬ জন ইউক্রেনীয় নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ১৬ জন শিশুও রয়েছে।

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর