১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১৬ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    চট্টগ্রামে মসজিদে বোমা হামলা মামলায় জেএমবির পাঁচ সদস্যর মৃত্যুদণ্ড

    চট্টগ্রামের একটি আদালত  চট্টগ্রামে নৌবাহিনীর ঈশা খাঁ ঘাঁটির ভেতরে মসজিদে বোমা হামলা মামলায় জেএমবির পাঁচ সদস্যকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন । এছাড়াও আদালত দণ্ডিত প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন ।

    বুধবার ১৭ আগস্ট চট্টগ্রামের সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবদুল হালিম ঘোষণা করেন এ রায়।ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মনোরঞ্জন দাশ আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

    দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, এম সাখাওয়াত হোসেন , আবদুল মান্নান, রমজান আলী, বাবুল রহমান  ও আবদুল গাফফার। আবদুল মান্নান ও আবদুল গাফফার এদের মধ্যে আপন ভাই। দণ্ডপ্রাপাপ্তদের মধ্যে সাখাওয়াত পলাতক রয়েছেন এবং অন্য আসামিরা আগে থেকেই কারাগারে ছিলেন। রায় ঘোষণার সময় তারা আদালতে হাজির ছিলেন এবং পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

    আইনজীবী মনোরঞ্জন দাশ  বলেন, মামলার অভিযোগপত্রে ২৪ জনকে সাক্ষী করা হলেও ১৭ জনের সাক্ষ্য নেন আদালত। একই ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে দায়ের হওয়া আলাদা অভিযোগের বিচার অন্য আদালতে চলছে।

    আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৮ ডিসেম্বর শুক্রবার জুমার পরে চট্টগ্রামে নৌবাহিনীর ঈশা খাঁ ঘাঁটির ভেতরের দুটি মসজিদে ১০ মিনিটের ব্যবধানে ঘটনা ঘটে বোমা বিস্ফোরণের । এসময় সামরিক-বেসামরিক মিলে ২৪ জন আহত হন। ঘটনার নয় মাস পর ২০১৬ সালের ৩ সেপ্টেম্বর নেভাল প্রভোস্ট মার্শাল কমান্ডার এম আবু সাঈদ বাদী হয়ে সন্ত্রাসবিরোধী ও বিস্ফোরক আইনে নগরীর ইপিজেড থানায় মামলা করেন। এতে নৌবাহিনীর সাবেক সদস্য এম সাখাওয়াত হোসেন, বলকিপার আবদুল মান্নান ও রমজান এবং বাবুলকে মামলায় আসামি করা হয়। পরে পুলিশ তদন্তে আবদুল মান্নানের ভাই আবদুল গাফফারের সম্পৃক্ততা পায় ।

    ইপিজেড থানার তৎকালীন পরিদর্শক মুহাম্মদ ওসমান গণি ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর ৫ জনকে আসামি করে আদালতে সন্ত্রাসবিরোধী ও বিস্ফোরক আইনে আলাদা দুটি অভিযোগপত্র দাখিল করেন।  দুই অভিযোগপত্রে ২৪ জনকে সাক্ষী করা হয়। ২০২০ সালের ২৮ জানুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

    এমআরএস ১৭-৮

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর