৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    তরুণ-তরুণীকে পেটালেন ইউপি সদস্য, ভিডিও ভাইরাল

    যশোরে ইউপি সদস্যের হাতে দুই তরুণ তরুণীর অমানবিক নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগে তিনদিন আগে ১৫ মার্চ সন্ধ্যা ৭টার দিকে যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের আব্দুলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

    নির্যাতনের শিকার ওই তরুণ-তরুণী যশোর সদর উপজেলার আব্দুলপুর গ্রামের বাসিন্দা। তারা একে অন্যের ‘নিকট আত্মীয়’ বলে জানিয়েছেন তাদের স্বজনরা। আর অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আনিচুর রহমান চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।শুক্রবার নির্যাতনের দুটি ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পরে গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত ওই ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীরা।

    মেয়ে ও মেয়ের সঙ্গে থাকা যুবককে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ ৪ জনের নামে শুক্রবার ভুক্তভোগী তরুণীর বাবা বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। পরে থানা পুলিশ বিষয়টি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে একজনকে আটক করেছে।

    নির্যাতনের শিকার তরুণীর বাবা অভিযোগ করে বলেন, ‘১৫ মার্চ সন্ধ্যায় আমার মেয়ে আত্মীয় এক যুবকের বাইসাইকেলে করে চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের এনায়েতপুর গ্রামে ওয়াজ মাহফিল শুনতে যায়। পরে ফেরার পথে তাদের বাইসাইকেল গতিরোধ করে অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগ এনে দুজনকেই অশালীন কথাবার্তা বলতে থাকেন ইউপি সদস্য আনিচুর রহমান, তার সহযোগী আইয়ুব আলী, ভুট্ট, আব্দুল আলীমসহ অজ্ঞাত ৪-৫ জন। এক পর্যায়ে তাদের দুজনকে একটি দোকানের ভেতরে নিয়ে বেধড়ক মারপিট করতে থাকেন তারা। খবর পেয়ে তাদের দুজনকে বাঁচাতে গেলে আমাকেও ধাক্কা দিয়ে তারা চলে যান।’

    তিনি অভিযোগ করেন, তাদের দুজনকে বিনাদোষে অমানবিক নির্যাতন করেছেন অভিযুক্তরা। এই নির্যাতনকারীদের বিচার চাই।১ মিনিট ২৯ সেকেন্ড এবং ৪৪ সেকেন্ডের দুটি ভিডিওটিতে দেখা যায়, একটি দোকানে প্রায় অর্ধশতাধিক মানুষের সামনে ওই তরুণীকে এলোপাথাড়ি জুতাপেটা করছেন ইউপি সদস্য আনিচুর রহমান। ওই তরুণী মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ইউপি সদস্যের পাশে থাকা কয়েক যুবক লাথিও মারছেন।

    ভিডিওতে দেখা যায়, অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগে তরুণীর সঙ্গে থাকা যুবককেও এলাপাথাড়ি মারধর করছেন ইউপি সদস্য ও তার সঙ্গে থাকা কয়েকজন যুবক।

    পরে আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন যুবক তরুণীর হাত ও পা ধরে রেখেছে আর ইউপি সদস্যের সঙ্গে থাকা আইয়ুব, ভুট্ট আর আব্দুল আলীমসহ তিন থেকে ৪ জন বিভিন্ন লাঠি দিয়ে তরুণীর হাতে-পায়ে বেধড়ক মারপিট করছেন। পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ওই যুবককেও একইভাবে লাঠি দিয়ে পেটান তারা।

    নির্যাতনের শিকার তরুণ-তরুণী বারবার ছেড়ে দেওয়ার কথা বললেও তারা কোনো কথা শোনেননি। এমনকি অনেককে দুই তরুণ-তরুণীর মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার কথাও বলতে শোনা গেছে ভিডিও দুটিতে।

    এ বিষয়ে চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দাউদ হোসেন বলেন, মেয়েটি চরিত্রহীন। এর আগেও অনেকবার অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগ উঠেছে মেয়েটির বিরুদ্ধে। ভিডিওটি ভাইরাল হলে আমি মোবাইলে ইউপি সদস্যের সঙ্গে কথা বলেছি সত্য ঘটনাটি জানার জন্য। মেয়ে ও ছেলেটি যদি অন্যায় করেও থাকে তারপরও এইভাবে নির্যাতন করা উচিত হয়নি। ইউপি সদস্য আসলেই অন্যায় করেছেন।

    তিনি আরও বলেন, আমি ভুক্তভোগী মেয়ে ও ছেলের পরিবারের সদস্যদের ইউনিয়ন পরিষদে আসতে বলেছিলাম। এর সুষ্ঠু বিচার করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলাম। কিন্তু এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত ও ভুক্তভোগী কেউ আসেনি আমার কাছে।

    যশোর কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগীর বাবা থানায় এসে ৪ জনের নামে মামলা করেছেন। মারধরের ভিডিও দেখে চিহ্নিত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের আটকে অভিযান চলমান রয়েছে।

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর