২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১৩ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ও আইওয়াতে বন্দুক হামলায় নিহত ৯ জন

    লস অ্যাঞ্জেলসে হামলার ৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ও আইওয়াতে আবারও বন্দুক হামলায় আরও অন্তত ৯ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। হামলার ঘটনায় নিহত ৯ জনের মধ্যে ২ জন শিক্ষার্থীও আছে। খবরটি জানায় এএফপি ও আল-জাজিরা।

    সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ৩টি আলাদা স্থানে পর পর এসব হামলার ঘটনা ঘটেছে।

    উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ার হাফ মুন বে-তে গোলাগুলির বিষয়ে সান মাতেও কাউন্টি শেরিফ টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় বলেছেন, ‘সন্দেহভাজন অপরাধীকে হেফাজতে রাখা হয়েছে। এখন ওই এলাকার বাসিন্দাদের জন্য কোনও হুমকি নেই।

    সান ফ্রান্সিসকোর দক্ষিণে, উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ার হাফ মুন বে-র খামারে দুটি কন্দুক হামলার খবর পাওয়া গেছে। এতে সাতজন নিহত ও তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। স্থানীয় সময় সোমবার এ হামলার ঘটনা ঘটে। হাফ মুন বে সান ফ্রান্সিসকো থেকে প্রায় ৩০ মাইল  দক্ষিণে।

    এ হামলার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আনুষ্ঠানিক নিশ্চিত করা হয়নি। তবে সান মাতেও কাউন্টি শেরিফ টুইট করে বলেছেন, তিনি ঘটনাটি খতিয়ে দেখছেন। তিনি জানান, সন্দেহভাজন একজনকে পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। নতুন করে হামলার কোনো হুমকি নেই বলেও জানান তিনি।

    আইন প্রয়োগকারী সংস্থার বরাত দিয়ে এবিসি৭-এর খবরে বলা হয়েছে, মাউন্টেন মাশরুম ফার্মে একজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। কাছের একটি স্থানে রাইস টাকিং-সয়েল ফার্মে তিনজন মারা গেছে। সর্বশেষ গণমাধ্যমটি জানায়, ৭ জন মারা যান।

    আইওয়া অঙ্গরাজ্যে আরেকটি হামলার খবর পাওয়া গেছে। এতে দুই শিক্ষার্থী নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তাদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা গুরুতর। গুরুতর জখম অবস্থায় শিক্ষকের চিকিৎসা চলছে।

    বার্তা সংস্থা এএফপি ডেস মোইনেস পুলিশ বিভাগের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, একটি যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে হামলায় ৩ জনের মধ্যে হাসপাতালে নেওয়ার পর ২ শিক্ষার্থী মারা যায়। আরেকজন ওই শিক্ষাকেন্দ্রটির কর্মচারী। তার অবস্থাও গুরুতর।

    ঘটনার পর স্কুল থেকে পালিয়ে যান বন্ধুকধারীরা। তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। পরে শহরের রাস্তায় একটি গাড়ি আটক করা হয়। সেখান থেকে তিন জন সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। স্কুলে হামলার নেপথ্যে তাদের যোগ থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

    ডেস মোইনেস পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদের এখনও শনাক্ত করা যায়নি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পর পর বন্দুক হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন সাধারণ মানুষ।

    শনিবার রাতে ক্যালিফোর্নিয়াতে হামলা হয়। ৭২ বছর বয়সি এক বন্দুকধারী মন্টেরে পার্কে চীনা নববর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গিয়ে এলোপাথাড়ি গুলি চালান। তার গুলিতে অন্তত ১০ জন মারা যান । আহত হন আরও অনেকে। পরে পুলিশ ঘিরে ফেললে নিজের শরীরে গুলি করে আত্মঘাতী হন অভিযুক্ত। তার পর ৪৮ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই আরও তিন হামলার ঘটনা ঘটলো।

    গান ভায়োলেন্স আর্কাইভ ওয়েবসাইট অনুসারে, গত বছর যুক্তরাষ্ট্রে গণহারে গুলি চালানোর ৬৪৭টি ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় একজন বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত চারজন নিহত বা আহত হন।

    এএফপি বলছে, ২০২২ সালে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ৪৪ হাজারেরও বেশি মানুষ গুলির আঘাতে মারা গেছেন। যার মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি ছিল আত্মহত্যা।

    মাহফুজা ২৪-১

     

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর