২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১৩ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    গাড়িচাপা দিয়ে নারীকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে হত্যার মামলায় আসামী সাবেক শিক্ষক জাফর শাহ মারা গেছেন

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গাড়িচাপা দিয়ে নারীকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে হত্যার মামলায় কারাগারে থাকা সাবেক শিক্ষক মোহাম্মদ আজহার জাফর শাহ মারা গেছেন।

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক এই শিক্ষক ঢাকার কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে ছিলেন। শুক্রবার তাকে অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। বিকেল সাড়ে ৩টায় তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

    ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানিয়েছেন, জাফর শাহকে বিকেল সাড়ে ৩টায় ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।তিনি জানান, ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ ঢামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি কারা কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

    এ বিষয়ে কারারক্ষী জুবায়ের হোসেন জানান, মোহাম্মদ আজহার জাফর শাহ কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতি হিসেবে ছিলেন। শুক্রবার হঠাৎ অসুস্থ বোধ করায় তাকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি সড়ক দুর্ঘটনাজনিত মামলার আসামি ছিলেন। তার হাজতি নম্বর ১৭৭/২৩।

    গেল বছরের ২ ডিসেম্বর রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় মোহাম্মদ আজহার জাফর শাহর গাড়ির বাম্পারে আটকে যান রুবিনা আক্তার নামের এক নারী। ওই নারী চিৎকার দিলেও তিনি গাড়ি না থামিয়ে প্রায় ১ কিলোমিটার টেনে নিয়ে যান।

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ধাওয়া করে নীলক্ষেত মোড়ের কাছে গাড়িটি থামান। আশাপাশে থাকা লোকজন ওই শিক্ষককে বেধড়ক পেটালে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রুবিনা আক্তার হত্যার মামলায় কারাগারে নেওয়া হয় জাফর শাহকে।

    এ ঘটনায় রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলা করেন রুবিনার ভাই জাকির হোসেন । তবে গণপিটুনিতে আহত জাফর শাহকে প্রায় একমাস ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ১ জানুয়ারি মামলার আসামি জাফরকে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ।

    এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই জাফর। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

    অন্যদিকে জাফর শাহকে নৈতিক স্খলনজনিত কারণে ২০১৮ সালে পদাবনতিসহ চাকরিচ্যুত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তিনি ক্লাস-পরীক্ষাসহ বিভিন্ন একাডেমিক কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয় ছিলেন বলে জানা যায়।

    মাহফুজা ১৩-১

     

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর