২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১৪ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    আজ বিভাগীয় শহরে বিএনপির পূর্বঘোষিত গণঅবস্থান কর্মসূচি

    সরকারের পদত্যাগসহ ১০ দফা দাবিতে গণঅবস্থান কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি ও সমমনা বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। এ কর্মসূচি পালন করতে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকেই নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে থাকেন নেতাকর্মীরা। নেতাকর্মীদের বিভিন্ন স্লোগানে মুখরিত পুরো নয়াপল্টন এলাকা।

    বিএনপির পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, আজ বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত এ গণ অবস্থান কর্মসূচি চলবে। গণঅবস্থান কর্মসূচি থেকে যুগপৎ আন্দোলনের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

    ঢাকার কর্মসূচির নেতৃত্বে থাকবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও মির্জা আব্বাস। সিলেট বিভাগে স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, রাজশাহীতে স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, ময়মনসিংহে স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, চট্টগ্রামে স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বরিশালে স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, রংপুরে স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, কুমিল্লায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু, খুলনায় দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান এবং ফরিদপুরে দলের ভাইস চেয়ারম্যান আহমদ আযম খান গণ অবস্থান কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেবেন।

    এদিকে বিএনপির কর্মসূচির বিপরীতে আওয়ামী লীগও রাজধানী বিভিন্ন এলাকা অবস্থান নিয়ে শোডাউন ও মিছিল করারও ঘোষণা দিয়েছে।

    বেলা বাড়ার সঙ্গে-সঙ্গে কর্মসূচিতে বিএনপির নেতাকর্মীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকলে নয়াপল্টন এলাকার ভিআইপি সড়কের একপাশ তাদের দখলে চলে যায়। যার ফলে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

    বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদকে বলেন, নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গণঅবস্থান কর্মসূচি শুরু হয়েছে।

    বিএনপির গণঅবস্থান কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে নয়াপল্টন ও আশপাশের এলাকায় সর্তক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ঢাকার বিভিন্ন পয়েন্টে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। আজ সকাল ৯টা থেকে রাজধানীর নয়াপল্টন, কাকরাইল, বিজয়নগর, পল্টন ও মতিঝিলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। চায়না টাউন মার্কেটের সামনে রাখা হয়েছে পুলিশের প্রিজনভ্যান ও জলকামান। এছাড়াও বিভিন্ন আশপাশের মোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবস্থান নিতে দেখা গেছে।

    এ বিষয়ে জানতে চাইলে মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) হায়াতুল ইসলাম খান বলেন, বিএনপিকে শান্তিপূর্ণভাবে গণঅবস্থানের জন্য ডিএমপি অনুমতি দিয়েছে। জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে ও বিশৃঙ্খলা এড়াতে বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

    মঙ্গলবার ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক সাংবাদিকদের বলেন, রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ না করে বিএনপিকে শান্তিপূর্ণভাবে গণঅবস্থান কর্মসূচি করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

    ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, সব রাজনৈতিক দলের রাজনৈতিক কর্মসূচির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে অনুরোধ করছি, তারা যেন কোনো প্রকার রাস্তা অবরোধ না করেন।

    মাহফুজা ১১-১

     

     

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর