১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
৮ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    দিল্লি ও তার আশপাশের এলাকায় বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দুই দিন অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি

    ভারতের রাজধানী  দিল্লির একাধিক জায়গার তাপমাত্রা আড়াই ডিগ্রি সেলসিয়াসের নীচে নেমে যায়। এদিন আয়াননগরের তাপমাত্রা ছিল ২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কিন্তু শুক্রবার তা আরও নেমে ১ দশমিক ৮ ডিগ্রি হয়েছে।

    বৃহস্পতিবার মৌসুমের ‘শীতলতম দিন’ দেখে দিল্লি। রাজধানী শহরের সফদরজং এলাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে উজওয়ায় ২ দশমিক ৩ ডিগ্রি ও দিল্লি রিজ ও লোদি রোড এলাকায় তাপমাত্রা ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। স্বাভাবিকের চেয়ে যা প্রায় ৪ ডিগ্রি কম।

    নতুন বছরের শুরু থেকেই তীব্র শীত পড়েছে দিল্লিতে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিদ্যুতের চাহিদা। বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বিদ্যুতের চাহিদা পৌঁছেছিল ৫ হাজার ২৪৭ মেগাওয়াটে। যা গত দু’টি শীতের মৌসুমে কখনো দেখা যায়নি। এর আগে ২০২০ সালের শীতের মৌসুমে এক দিনে বিদ্যুতের চাহিদা ৫ হাজার ৩৪৩ মেগাওয়াটে পৌঁছেছিল।

    তাপমাত্রা কমে যাওয়ার সঙ্গে রয়েছে তীব্র কুয়াশার দাপট। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫টা নাগাদ দিল্লির কোনো কোনো এলাকায় দৃষ্টিসীমা ৫০ মিটারের কাছাকাছি অবস্থান করছিল।

    দেশটির আবহাওয়া অধিদপ্তর দিল্লি ও তার আশপাশের এলাকায় বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দুই দিন অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করে। তাপমাত্রা স্বাভাবিক হওয়ার আগ পর্যন্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বয়স্ক ও অসুস্থদের বাসার বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

    দেশটির আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, মঙ্গলবার সর্বনিম্ন ৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা থাকলেও ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে তাপমাত্রা নেমে আসে ৪ দশমিক ৪ ডিগ্রিতে। আর বৃহস্পতিবার নেমে দাঁড়ায় ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ঘন কুয়াশায় কয়েক হাত দূরের দৃশ্যও ঝাপসা মনে হয় বলে ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়।  দিল্লির তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি হলেও বৃহস্পতিবার ভারতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয় আয়ানগরে।

    মাহফুজা ৬-১

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর