১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
৮ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    রিয়াদের মরসুল পার্ক স্টেডিয়ামে আতশবাজি জ্বালিয়ে রোনালদোকে বরণ

    পেশাদার ফুটবলে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো জীবন কাটিয়েছেন ২০ বছর । পুরোটা সময় ইউরোপে ছিলেন এবং খেলেছেন দাপটের সঙ্গে। কুড়িয়েছেন অঢেল খ্যাতি এবং গড়েছেন অগণিত রেকর্ড। এবার  তার নতুন অধ্যায় শুরু হচ্ছে । সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসেরের সঙ্গে চুক্তি করেছেন তিনি।

    মঙ্গলবার রাতে নতুন ক্লাবে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হলো সিআরসেভেনকে। ৩৭ বছর বয়সী পর্তুগিজ সুপারস্টার ইউরোপ ছেড়ে মধ্যপ্রাচ্যের দেশে আসায় খুশি সে।  আরবীয় ফুটবলকেও নতুন উচ্চতায় নিতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ রোনালদো।

    রিয়াদের মরসুল পার্ক স্টেডিয়ামে আতশবাজি জ্বালিয়ে হাজার হাজার দর্শকের সামনে রোনালদোকে বরণ করে নেয় ৯ বারের সৌদি লিগ চ্যাম্পিয়নরা। ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত তারা চুক্তি করেছে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী ফরোয়ার্ডের সঙ্গে।

    রোনালদো বলেন, ‘সৌদি আরবে এসেছি মানে আমার ক্যারিয়ারের এটাই শেষ নয়। এ কারণেই আমি পাল্টাই এবং সত্যি কথা বলতে লোকেরা কী বলছে সেটা নিয়ে আমি একদমই চিন্তিত নই।’তিনি বলেন ‘ইউরোপে আমার কাজ শেষ। আমি সবকিছু জিতেছি সেখানে। আমি খুশি, আল নাসেরে যোগ দিয়ে গর্বিত। লোকেরা জানে না এখানকার খেলার স্তর। ইউরোপে আমি অনেক প্রস্তাব পেয়েছিলাম, ব্রাজিল, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, এমনকি পর্তুগালেও। অনেক ক্লাব আমাকে চুক্তির চেষ্টা করছিল কিন্তু এই ক্লাবকে আমি কথা দিয়েছিলাম।’

    আল নাসেরের হলুদ-নীল কিট পরে যখন রোনালদো মরসুল পার্কে ঢুকলেন, তখন ২৫ হাজার দর্শক উল্লাসে ফেটে পড়ে। চারদিকে আতশবাজির ঝলকানিতে এক রাজকীয় বরণ হয় তার। রোনালদোর বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজ আরবের ঐতিহ্যবাহী কালো বোরখা ধরনের পোশাক পরে এসেছিলেন এবং  সঙ্গে ছিল সন্তানরাও।

    রোনালদো বলেন, ‘এই চুক্তি অনন্য কারণ আমি একজন অনন্য খেলোয়াড়। এটা আমার জন্য স্বাভাবিক বিষয়। ওখানে (ইউরোপে) আমি সব রেকর্ড ভেঙেছি এবং এখানেও কিছু ভাঙতে চাই। এখানে জিততে এসেছি, এসেছি উপভোগ করতে। দেশটির সাফল্য ও সংস্কৃতির অংশ হতে চাই।’

    মঙ্গলবার  আল নাসর রোনালদোকে বরণ করে। ক্লাবটিতে এসে প্রথমবার সংবাদ সম্মেলনেও কথা বলেছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। রোনালদো বলেন, ‘আমি জানি, সৌদি আরবের লিগ অনেক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। আমি এই লিগের অনেক ম্যাচ দেখেছি। কোচ যদি মনে করেন আমাকে সুযোগ দেয়া উচিত, তবে খেলব। খেলা চালিয়ে যেতে আমি প্রস্তুত।’

    সৌদি ক্লাব হলেও বড় অঙ্কের অর্থ পাচ্ছেন সিআর সেভেন। বাৎসরিক ৭৫ মিলিয়ন ডলারে ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তি সই করেছেন তিনি। নতুন ঠিকানায়ও প্রিয় জার্সি নাম্বার পাচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো।

    মাহফুজা ৪-১

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর