৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    ‘এফ’ গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ রাত ৯টায় মাঠে নামছে ক্রোয়েশিয়া ও বেলজিয়াম

    বেলজিয়াম ও ক্রোয়েশিয়া  গত বছরও মুখোমুখি হয়েছে ।  কিন্তু বিশ্বকাপে এই প্রথম বার দেখা হতে যাচ্ছে দল দুটির। ‘এফ’ গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ রাত ৯টায় মাঠের লড়াইয়ে নামবে এই দুই দল। এখন পর্যন্ত মুখোমুখি লড়াইয়ে বেলজিয়াম ও ক্রোয়েশিয়া আছে সমানে-সমান অবস্থানে।

    বেলজিয়াম প্রথম ম্যাচে কানাডাকে কোনোমতে হারায়। এরপর  মরক্কোর কাছে ২-০ গোলে বিব্রতকর হার। ক্রোটদের সমান ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে মরক্কো, এক পয়েন্ট পেছনে বেলজিয়াম (৩)। এই গ্রুপ থেকে আগেই ছিটকে গেছে কানাডা।

    বিশ্বের দুই নম্বর র্যাংকিংধারী বেলজিয়ামকে শেষ ষোলোতে উঠতে হলে জিততেই হবে। অন্যদিকে গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার জন্য এক পয়েন্টই যথেষ্ট। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় আল রায়ানের আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়ামে হবে ম্যাচটি।

    মরক্কো কানাডার সঙ্গে ড্র করলে কিংবা হারলে ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে গ্রুপের শীর্ষ দল হওয়ারও সুযোগ বেলজিয়ামের সামনে। তবে তারা যদি ড্র করে এবং মরক্কো হারে, তাহলে ক্রোয়েশিয়া গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে এবং দ্বিতীয় স্থান নির্ধারণ হবে সমীকরণ মিলিয়ে। মরক্কো ও বেলজিয়ামের তখন সমান ৪ পয়েন্ট হবে। তখন মরক্কো কেবল চার বা তার বেশি গোলে হারলেই বেলজিয়ানরা নকআউটের টিকিট পাবে।

    ক্রোয়েশিয়ার বিশ্বকাপ শুরু হয়েছিল মরক্কোর বিপক্ষে প্রাণহীন ড্র দিয়ে। কানাডার বিপক্ষে পিছিয়ে পড়লেও তারা ৪-১ গোলে জিতে ঘুরে দাঁড়ায়। একটি ড্রই তাদের শেষ ষোলোতে ওঠার জন্য যথেষ্ট। কিন্তু কোচ জ্লাতকো দালিচ জয়ের জন্য মরিয়া, ‘বেলজিয়ামের সঙ্গে এক পয়েন্ট নিয়ে ম্যাচ শেষ করার পক্ষে আমি নই। কোনও সহজ ম্যাচ নেই (বিশ্বকাপে)। বেলজিয়ামকে জিততে হবে কিন্তু আমরাও জয়ের লক্ষ্যে নামবো।’

    ২০০০ সালে প্রথমবার দুই দলের দেখা হয়, আটবার খেললেও ক্রোয়েশিয়া ও বেলজিয়াম এই প্রথমবার বিশ্বকাপে মুখোমুখি হচ্ছে। জয়-পরাজয়ের ব্যবধান দুই দলই সমান। তিনটি করে জিতেছে ও হেরেছে। ড্র বাকি দুটি। শেষবার গত বছর জুনে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ১-০ গোলে ক্রোটদের হারায় বেলজিয়াম।

    ক্রোয়েশিয়া (ফরমেশন ৪-৩-৩)–লিভাকোভিচ, জুরানোভিচ, লভ্রেন, জিভারদিওল, সোসা, মদরিচ, ব্রজোভিচ, কোভাসিচ, কামারিচ, লিভাজা, পেরিসচ।

    বেলজিয়াম (ফরমেশন ৩-৪-২-১)—কোর্তোয়া, কাস্টানিয়ে, অ্যাল্ডারভেইরাল্ড, ভেরটনগেন, মুনিয়ের, টিলেমানস, ভিটসেল, কারাসকো, ডি ব্রুইনা, হ্যাজার্ড, বাতশুয়াই।

    ২০১০ সালে সর্বশেষ ফিফা প্রীতি ম্যাচে বেলজিয়ামকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল ক্রোয়েশিয়া। এরপর আর বেলজিয়ামকে হারাতে পারেনি। কিন্তু এবার ক্রোয়েশিয়ান ক্যাম্পের আত্মবিশ্বাস রয়েছে তুঙ্গে। শেষ ম্যাচে জয়ের ব্যাপারে পুরো দলই আত্মবিশ্বাসী। চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে তৃতীয় হওয়া বেলজিয়ামের এখন পর্যন্ত বড় কোনো টুর্নামেন্টে সেরা সাফল্য। বেলজিয়ামের স্বর্ণালি প্রজন্মের সামনে এখন গ্রুপ-পর্ব থেকে বিদায়ের শঙ্কা, যা কাটিয়ে উঠতে মুখিয়ে আছে পুরো দল।

    গ্রুপের প্রথম ম্যাচে সাহসী কানাডার বিরুদ্ধে কোনো মতে ১-০ গোলের জয় তুলে নিয়েছিল বেলজিয়াম। কিন্তু পরের ম্যাচে উজ্জীবিত মরক্কোর সঙ্গে আর পেরে উঠেনি। ২-০ গোলের পরাজয় মেনে নিয়ে তাদের মাঠ ছাড়তে হয়েছে। এই ম্যাচের পর ব্রাসেলসের রাস্তায় উত্তেজিত সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

    মাহফুজা ১-১২

     

     

     

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর