১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১১ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    রেলের টিকিট কালোবাজারির ঘটনায় সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে পুলিশের চার্জশিট

    রেলের টিকিট কালোবাজারির ঘটনায় সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিম ও তার সহযোগী এমরানুল হকের  বিরুদ্ধে পুলিশ চার্জশিট  দিয়েছে । এ অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ঢাকা রেলওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক ফ ম শাহ জাহান আদালতে ।

    সোমবার ঢাকার রেলওয়ে থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখা থেকে এ তথ্য জানা যায়।

    চার্জশিটে আসামিদের বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫(১) ধারায় অভিযোগ আনা হয়। এছাড়া পূর্ণাঙ্গ নাম ঠিকানা না পাওয়ায় আসামি সোহানসহ অজ্ঞাত ২/৩ জনকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়।

    সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিম ৬ বছর ধরে কমলাপুর টিকিট সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে বিভিন্ন লোকের সঙ্গে কথোপকথনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বিক্রি করতেন। তাছাড়া তিনি অবৈধ উপায়ে টিকিট ব্লক করে পরে যাত্রীদের কাছে কালোবাজারির মাধ্যমে বেশি দামে বিক্রি করতেন। আসামি রেজাউল  তার সহযোগী সম্রাটের কাছে টিকিট সরবরাহ করতেন এবং  সম্রাট ও তার অজ্ঞাত সহযোগীদের দিয়ে বেশি দাম দিয়ে কালোবাজারির মাধ্যমে বিক্রি করতেন । আসামিরা ঈদুল ফিতর ও আজহাসহ বিভিন্ন উৎসবে বাংলাদেশ রেলওয়ের টিকিট অবৈধভাবে সংগ্রহ করে  পরে  কালোবাজারে নির্ধারিতমূল্যের চেয়ে  বেশি দামে বিক্রয় করে আসছিলেন।

    মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঈদযাত্রায় ট্রেনের টিকিটের বিপুল চাহিদা থাকায় কালোবাজারে টিকিট বিক্রি করে আসছিল একটি চক্র। বেমির ভাগ মানুষই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার চেষ্টা করছিলেন ।  কিন্তু ঈদ উপলক্ষে সকালে টিকিট ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই শেষ হয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। এমন অভিযোগে র্যাব-১ এর গোয়েন্দা দল কমলাপুর স্টেশন থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আটক সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিমকে।  এক পর্যায়ে তার দেয়া তথ্যে টিকিট কালোবাজারির বিষয়টি নিশ্চিত হয় র্যাব। পরে সহযোগী এমরানুলকে আটক করা হয়।

    এ ঘটনায় ঢাকার রেলওয়ে থানায় মামলা করেন২০২২ সালের ২৯ এপ্রিল র্যাব-১ এর নায়েবে সুবেদার  রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে । এ মামলায় রেজাউল ও সম্রাটকে  গ্রেফতার দেখানো হয়। ওইদিন তাদের আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ডে আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত তাদের প্রত্যেকের দুদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন এবং বর্তমানে তারা জামিনে আছেন।

    মাহফুজা ৩১-১০

     

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর