২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১০ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    আইসিসি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ; সেমিফাইনালে থাইল্যান্ডকে ১১ রানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

    আইসিসি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের সেমিফাইনালে থাইল্যান্ডকে ১১ রানে হারিয়ে ফাইনালে গেলো  বাংলাদেশ।

    শুক্রবার রাতে টস হেরে বাংলাদেশ আগে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে ১১৩ রান সংগ্রহ করে আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে ।থাইল্যান্ড জবাবে ৬ উইকেট হারিয়ে ১০২ রানের বেশি  করতে পারেনি । সালমা-নাহিদারা ১১ রানের জয়ে বাছাইপর্বের ফাইনালে জায়গা করে নেয় । দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের টিকিটও নিশ্চিত করে বাংলাদেশ ।

    টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের ফারজানা ও মুর্শিদা  ৩৪ রান করেন । ফারজানা ১৭ বলে ১ চারে ১১ রান করেন। ৫২ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ এবং  মুর্শিদা ৩৫ বলে ২ চারে ২৬ রান করেন। এরপর নিগার সুলতানা ১৭ রান করে ও শবনম মুস্তারি ৬ রান করে আউট হন। ইনিংসের শেষ বলে  রিতু মনি ১৭ রানে রান আউট হন। আর রুমানা আহমেদ ২৪ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন।

    বল হাতে থাইল্যান্ডের রোসেনান কানোহ, ফানিতা মায়া ও অন্নিচা কামচম্পু ১টি করে উইকেট নেন।

    ১১৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই কঠিন চাপে পড়ে যায় থাইল্যান্ড। ইনিংসের পাঁচ ওভারের মধ্যে মাত্র ১৩ রানে সাজঘরে ফিরে যান তিন ব্যাটার। নিজের প্রথম ওভারে ডাবল উইকেট মেইডেন নেন বাঁহাতি স্পিনার সানজিদা আখতার মেঘলা। সেখান থেকে প্রতিরোধ গড়ে চতুর্থ উইকেটে ৩২ রান যোগ করেন নারুমল চাওয়াই ও নাত্থাকাম চান্থাম। অধিনায়ক নারুমল ইনিংসের ১৩তম ওভারে দলীয় ৪৫ রানে আউট হওয়ার আগে খেলেন ২৭ বলে ১২ রানের ইনিংস। যা দলের ওপর চাপ বাড়িয়েছে শুধু। আহত চানিদা সুত্থিরুয়াং জায়গায় নামা সোনারিন টিপোচকে নিয়ে শেষ চেষ্টা চালান চান্থাম। বিশেষ করে শেষ তিন ওভারে ৫১ রানের চাহিদায় ১৮তম ওভারে ১৬ রান ও ১৯তম ওভারে ১৩ রান নিয়ে খেলা জমানোর আভাস দেন তিনি।

    এছাড়া নারুয়েমল ১২, নান্নাপাত ১০ ও সোরননারিন অপরাজিত ১০ রান করেন। বল হাতে বাংলাদেশের সালমা খাতুন ৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে ৩টি ও সানজিদা আক্তার মেঘলা ৪ ওভারে ১ মেডেনসহ ৭ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন।

    শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় ফাইনালে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড।

    দশ দলের অংশগ্রহণে হতে যাওয়া ২০২৩ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে স্বাগতিক হিসেবে আগে থেকেই জায়গা নিশ্চিত ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। এছাড়া র‍্যাংকিং বিবেচনায় ভারত, অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তান পেয়েছে সরাসরি বিশ্বকাপের টিকিট।

    ২০১৪ সালে  টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সরাসরি খেলেছিল স্বাগতিক হিসেবে। এরপর ২০১৫, ২০১৮, ২০১৯ সালে বাছাইপর্বে রানার্সআপ ও দুইবার চ্যাম্পিয়ন হয়ে টাইগ্রেসরা বিশ্বকাপে খেলে ।

    মাহফুজা  ২৩-৯

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর