১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    রাঙ্গাবালীতে বৃষ্টির জন্য ইসতিসকার নামাজ আদায়

    রাঙ্গাবালী প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) : পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে প্রচন্ড গরম, খরা, অনাবৃষ্টিতে হাহাকার পড়েছে রাঙ্গাবালী সহ পার্শ্ববর্তী অন্যান্য এলাকায় । অনাবৃষ্টিতে থেকে রক্ষা পেতে আল্লাহর কাছে সাহায্য চেয়ে ইসতিকসার নামাজ আদায় করেছেন রাঙ্গাবালী উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা। নামাজ শেষে অনাবৃষ্টি ও প্রচন্ড খরা থেকে রেহাই পেতে মুসল্লিরা দোয়া মোনাজাতের মাধ্যমে বৃষ্টি চেয়ে আল্লহার কাছে সাহায্য প্রার্থনা করা হয়।
    মঙ্গলবার সকাল ৮ টায় রাঙ্গাবালী উপজেলা প্রাণকেন্দ্র বাহেরচর কারামতিয়া ঈদগাহ মাঠে প্রায় পাঁচশতাধিক মুসল্লিদের নিয়ে এ নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।
    নামাজ শেষে স্থানীয় মুসল্লিরা ও কৃষকরা জানান, তীব্র খরা,গরম ও অনাবৃষ্টির কারণে শুকিয়ে যাচ্ছে মাঠঘাট ও কৃষিজমি। প্রচন্ড খরায় ফলস উৎপাদন নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন স্থানীয় কৃষকরা। গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন মানুষ, ঘরে বাইরে কোথাও প্রশান্তি মিলছেনা।
    তাই এলাকাবাসী ও ধর্মপ্রান মুসল্লিরা একত্রিত হয়ে আল্লাহর কাছে সাহায্য চেয়ে বৃষ্টির জন্য ইসতিসকা নামাজ ও দোয়া মোনাজাত এর আয়োজন করেন।
    রবের কাছে সাহায্য চেয়ে বিশেষ এ (ইসতিসকার) নামাজ ও দোয়া পরিচালনা করেন সাজির হাওলা আকবারিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার ও রাঙ্গাবালী সদর ইউনিয়নের নিকাহ রেজিস্টার মাওলানা সুলতানুর রহমান। নামাজ শেষে এ বিষয়ে মাওলানা সুলতানুর রহমান বলেন, বৃষ্টি না হওয়ায় তাপপ্রবাহে দেশের মানুষের বিপদ-আপদ ও দুঃখ-কষ্ট হতে থাকলে প্রয়োজন পূরণের জন্য আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা করা সুন্নত। একেই আরবিতে বলা হয় ‘ইসতিসকা’ অর্থাৎ পানি প্রার্থনা করা।
    হাদিস শরিফে বর্ণিত আছে- রাসুলুল্লাহ (সা.) বৃষ্টি প্রার্থনার সময় বলতেন, ‘হে আল্লাহ! তুমি তোমার বান্দাকে এবং তোমার পশুদের পানি দান করো। আর তাদের প্রতি তোমার রহমত বর্ষণ করো এবং তোমার মৃত জমিনকে জীবিত করো।’
    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর