১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২৭শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২৬শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    হাত বেঁধে কোমড় পর্যন্ত মাটিতে পুঁতে নির্যাতন, ৩ জন আটক

    শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলায় আপন বড় ভাইয়ের ছেলেকে দুই হাত পেছনে বেঁধে কোমড় পর্যন্ত মাটিতে পুঁতে রেখে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

    জানা যায়, চাচা আলিমদ্দিন তার ভাতিজা নূর ইসলাম (৩৫) এর উপর এই নির্মম নির্যাতন করেন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নূর ইসলামকে উদ্ধার করে এবং ঘটনায় জড়িত ৩ জনকে আটক করে।

    শনিবার (২৬ মার্চ) বিকেলে নালিতাবাড়ী উপজেলার রামচন্দ্রকুড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ তন্তর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

    পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামের আবু তাহের মারা যাওয়ার পর সহোদর ছোট ভাই আলিমদ্দিনের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ বাঁধে ভাইয়ের ছেলে নূর ইসলামের সঙ্গে। এ নিয়ে স্থানীয় পর্যায়ে একাধিকবার শালিশি বৈঠক হলেও সুরাহা মিলেনি। একপর্যায়ে শনিবার দুপুরে আলিমদ্দিন ও তার স্ত্রী-ছেলে মিলে নূর ইসলামের বাড়িতে যায় এবং তারই বাড়ির আঙিনায় মাটি খুঁড়ে গর্ত করে। পরে বেলা আড়াইটার দিকে নূর ইসলামের দুই হাত পেছনে রশি দিয়ে বেঁধে প্রায় কোমড় পর্যন্ত মাটিতে পুঁতে রাখে।

    এসময় নূর ইসলামের পরিবারের লোকজন চিৎকার করলেও আলিমদ্দিনের ভয়ে কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে খবর পেয়ে বিকেল তিনটার দিকে থানা পুলিশ পুঁতে রাখা নূর ইসলামকে উদ্ধার করে। অসুস্থ হয়ে পড়া নূর ইসলামকে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

    উদ্ধার অভিযানে অংশ নেওয়া এএসআই আমিনুল ইসলাম বলেন, আমরা সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পুঁতে রাখা নূর ইসলামকে উদ্ধার করি এবং অভিযুক্ত ৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। আটককৃতরা হলেন, আলিমদ্দিন, তার স্ত্রী মনিরা বেগম ও ছেলে মুক্তার হোসেন।

    ঘটনার ব্যাপারে নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল বলেন, আমরা খবর পাওয়ার সাথে সাথে ভিকটিমকে উদ্ধার করেছি এবং জড়িত সন্দেহে ৩ জনকে আটক করেছি। এই ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা চলমান রয়েছে।

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর