১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২৫শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

    সর্বশেষ খবর

    নারী কর্মকর্তাকে থাপ্পর মেরে জেলা ছাড়া করার হুমকি দিলো নারী এমপি !(ভিডিওসহ)

    পাবনায় আন্তর্জাতিক নারী দিবসে আমন্ত্রণ জানানো দেরি করার অভিযোগ তুলে জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কানিজ আইরিন জাহানকে থাপ্পড় দিয়ে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিয়েছেন পাবনা-সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি।

    বিষয়টি সবার সামনে আনেন কানিজ আইরিন জাহান নিজেই । মহিলা দিবসের আলোচনা সভায়ে আপেক্ষ করে  তিনি বলেন।

    অবশ্য অভিযোগটি অস্বীকার করে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি।

    পাবনায় আন্তর্জাতিক নারী দিবসে আমন্ত্রণ জানানো দেরি করার অভিযোগ তুলে থাপ্পড় দিয়ে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিয়েছেন পাবনা-সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি। এমন অভিযোগ করেছেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কানিজ আইরিন জাহান। সোমবার (৭ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি প্রথম অবস্থাতেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

    এদিকে দুপুর আড়াইটায় নারী সংসদ সদস্য পাবনা প্রেসক্লাবে এসে অভিযোগটি গণমাধ্যমে অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘ফেসবুকে যে অডিও আপলোড করা হয়েছে সেটি তার সাথে কথোপকথন নয়।’

    অন্যদিকে জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কানিজ আইরিন জাহান দাবি করেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোডকৃত অডিও রেকর্ডটি নারী সংসদ সদস্য ও তার কথোপকথন।

    মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কানিজ আইরিন জাহান জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত নারী দিবসের আলোচনা সভায় উপস্থিত সবার সামনে তার বক্তব্যে এ অভিযোগ উঠে আসে। এর আগেই কথোপকথনের একটি অডিও রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কানিজ আইরিন জাহান এই প্রতিনিধিকে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে অনুষ্ঠানে সংরক্ষিত আসনের মহিলা সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলিকে প্রধান অতিথি করা হয়েছিল। দাপ্তরিক ব্যস্ততার কারণে আমন্ত্রণপত্র দিতে একটু দেরি হয়। সোমবার বেলা ১১টায় সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী শামসুন্নাহার রেখা তাকে ফোনে সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলির চিঠি কেন তিনি পাননি এর কারণ জানতে চান। চিঠি পাঠানো হচ্ছে বলে আমি তাকে জানাই।’

    তিনি আরও বলেন, ‘রেখা আপার কাছ থেকে ফোন নিয়েই সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি আমাকে গালিগালাজ করতে শুরু করেন। একপর্যায়ে আমাকে থাপ্পড় দিয়ে পাবনা ছাড়া করবেন বলে হুমকি দেন। আমি দুর্নীতিবাজ এমন অশালীন কথা বলে ১০ মিনিটের মধ্যে পাবনা থেকে তাড়ানোর ক্ষমতা আছে বলেও আমাকে শাসান।’

    পাবনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (স্থানীয় সরকার) মোখলেসুর রহমান জানান, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মৌখিকভাবে বিষয়টি অবহিত করেছেন। বিষয়টি সম্পর্কে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবেন।’

    জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কানিজ আইরিন জাহান মূলত: প্রোগ্রাম অফিসার। তিনি সুজানগর উপজেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হিসাবে সাত বছর দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ২০১৮ সালের মার্চ মাসে জেলায় প্রোগ্রাম অফিসার হিসাবে যোগ দেন। তখন থেকে এখানে জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্বে আছেন।

    আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
    আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

    Latest Posts

    spot_imgspot_img

    আলোচিত খবর