স্বাস্থ্য

১২ কোটি টিকা দেওয়া হবে জানুয়ারির মধ্যে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

রোববার (৭ নভেম্বর,২০২১) দুপুরে গাজীপুরের কাশিমপুরে নতুন ওষুধ কোম্পানি ডিবিএল ফার্মাসিউটিক্যালসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘দেশে করোনার ভ্যাকসিনের ঘাটতি নেই। আমাদের কাছে ১ কোটির বেশি ভ্যাকসিন আছে। দেশের সব মানুষকেই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। সেজন্য ২১ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে। সেসবের মধ্যে এ মাসে অন্তত ৩ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দেশে আসবে। আগামী মাসেও একই পরিমাণ ভ্যাকসিন আসার কথা আছে। ইতোমধ্যে অন্তত ৭ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এভাবে চলতে থাকলে ২০২২ সালের জানুয়ারির মধ্যে কমপক্ষে ১২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব হবে। সেটা করা গেলে করোনায় মৃত্যুহার শূন্যের কোঠায় নামানো সম্ভব হবে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে করোনাকালেও কোথাও ওষুধের ঘাটতি দেখা দেয়নি। গ্রাম পর্যায়েও ওষুধ ছিল পর্যাপ্ত। বাংলাদেশের ওষুধ দেশীয় চাহিদার ৯৮ ভাগ পূরণ করছে। বিদেশে রপ্তানি করে প্রচুর আয়ও হচ্ছে। বাংলাদেশের ওষুধ এখন বিশ্বের ১৪৫টি দেশে রপ্তানি হচ্ছে। দেশের অন্যতম বড় আয়ের উৎস হতে যাচ্ছে ওষুধ রপ্তানি। দেশে যাতে ভেজাল ওষুধ না থাকে এবং সবাই সাশ্রয়ী দামে মানসম্পন্ন ওষুধ কিনতে পারে, সেজন্য আমরা নতুন ওষুধ নীতিমালা করতে যাচ্ছি। ফলে, দেশে অকারণে কেউ ওষুধের দাম বাড়াতে পারবে না।’

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছাড়াও সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত, কেন্দ্রীয় ঔষধ প্রশাসনের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহাবুবুর রহমান, ডিবিএল ফার্মাসিউটিক্যালসের চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button