আইন-আদালত

সম্রাট অসুস্থ থাকায় আদালতে হাজির করা হয়নি, পেছালো শুনানি

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় আদালতে হাজির করা হয়নি। ফলে সম্রাটের উপস্থিতিতে চার্জশিট গ্রহণে শুনানির তারিখ পিছিয়ে গেলো।

সোমবার (২৫ অক্টোবর,২০২১) ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালতে সম্রাটের অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলাটি চার্জশিট গ্রহণের জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু সম্রাট অসুস্থ হয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে আদালতে হাজির যায়নি মর্মে আদালতকে অবহিত করে কারা কর্তৃপক্ষ।

আদালত আগামি ১০ জানুয়ারি সম্রাটের উপস্থিতিতে চার্জশিট গ্রহণের তারিখ ধার্য করেছেন বলে জানিয়েছেন দুদকের কোর্ট ইন্সপেক্টর আমিনুল ইসলাম।

এর আগে গত ২২ সেপ্টেম্বর কারান্তরীন সম্রাটকে আদালতে হাজির করতে প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট (হাজতি পরোয়ানা) জারি করেন আদালত।

২০১৯ সালের  ১২ নভেম্বর দুদকের উপপরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম দুই কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সম্রাটের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, সম্রাট বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসা ও অবৈধ কার্যক্রমের মাধ্যমে ২ কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন। অভিযোগ আছে তিনি মতিঝিল ও ফকিরাপুল এলাকায় ১৭টি ক্লাব নিয়ন্ত্রণ করতেন এবং সেগুলোতে লোক বসিয়ে মোটা অঙ্কের কমিশন নিতেন। অনেক সময় ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনো ব্যবসা পরিচালনা করতেন। তিনি অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থ দিয়ে ঢাকার গুলশান, ধানমণ্ডি,  উত্তরাসহ বিভিন্ন স্থানে একাধিক ফ্ল্যাট, প্লট কিনেছেন ও বাড়ি নির্মাণ করেছেন। এ ছাড়া সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দুবাই ও যুক্তরাষ্ট্রে নামে-বেনামে তার ১ হাজার কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে।

মামলাটি তদন্ত করে গত বছর ২৬ নভেম্বর সম্রাটের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন জাহাঙ্গীর আলম। ক্যাসিনো ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর সম্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তাকে বিভিন্ন মামলায় রিমান্ডে নেওয়া হয়। রিমান্ড শেষে বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button