Uncategorizedঅর্থনীতি

সূচকের ধারাবাহিক উত্থানের রেকর্ড গড়ল ডিএসই-সিএসই

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার ৯ সেপ্টেম্বর দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)সূচকের বড় উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে।

এদিন ডিএসই’র ডিএসইএক্স, ডিএস-৩০ ও ডিএসইএস সূচক এবং সিএসই’র সিএসইএক্স, সিএএসপিআই ও সিএসআই সূচক অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে গড়েছে নতুন রেকর্ড। এ নিয়ে টানা সাত কার্যদিবস ধরে ডিএসই ও সিএসইতে সূচকের উত্থান হয়েছে। ফলে উভয় শেয়ারবাজারেই ধারাবহিকভাবে সূচকে রেকর্ড গড়েছে।

আজ ডিএসই ও সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন কমেছে। আর ডিএসইতে সমানভাবে লেনদেনে অংশ নেওয়া কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে ও কমেছে। তবে সিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে।

বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান ডিএসইএক্স সূচক৬২.৪৪২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৭ হাজার ২৫৮.৪৭ পয়েন্টে, যা ডিএসইর ইতিহাসে সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান। এর আগে ৮ সেপ্টেম্বর ডিএসইএক্স সূচক ৭ হাজার ১৯৬.৩২ পয়েন্টে পৌঁছে নতুন রেকর্ড গড়েছিল। আর গত ২৯ আগস্ট ডিএসইএক্স সূচক ছিল ৬ হাজার ৮২৯.৬০ পয়েন্টে। ফলে এ সাত কার্যদিবস ডিএসইএক্স সূচক ধারাবাহিকভাবে বেড়েছে।

একইভাবে ডিএসই-৩০ সূচক ৩৩.৫৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২ হাজার ৬৪৭.১৪ পয়েন্টে, যা ডিএসইর ইতিহাসে সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান। পাশাপাশি ডিএসইএস সূচক ২০.৪০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১ হাজার ৫৯২.৩১ পয়েন্টে, এটিও ডিএসইর ইতিহাসে সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান।

দিন শেষে ডিএসইতে ৩৭৬ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৭টির, কমেছে ১৭৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির। ডিএসইতে এদিন ২ হাজার ৬৪৮ কোটি ২৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ১০০ কোটি টাকার বেশি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার অপর শেয়ারবাজার সিএসইর প্রধান সিএসইএক্স সূচক ৯৯.০৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১২ হাজার ৬৭৮.৫৪৯ পয়েন্টে, যা সিএসই ইতিহাসে সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান। এর আগে ৮ সেপ্টেম্বর সিএসইএক্স সূচক ১২ হাজার ৫৬৯.৫১ পয়েন্টে পৌঁছে নতুন রেকর্ড গড়েছিল। আর গত ২৯ আগস্ট সিএসইএক্স সূচক ছিল ১১ হাজার ৮৯৯.১৩ পয়েন্টে। ফলে এ সাত কার্যদিবস সিএসইএক্স সূচক ধারাবাহিকভাবে বেড়েছে।

আর সার্বিক সিএএসপিআই সূচক ১৬২.০৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২১ হাজার ১৪১.০৫ পয়েন্টে, যা সিএসইর ইতিহাসে সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান।

এছাড়া, সিএসআই সূচক ১০.৮৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১ হাজার ৩৫৫.১৩ পয়েন্টে, যা সিএসইর ইতিহাসে সূচকটির সর্বোচ্চ অবস্থান।

এদিন, সিএসইতে ৩৩২টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৯টির, কমেছে ১৬২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির। দিন শেষে সিএসইতে ৯৬ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ৮ কোটি টাকার বেশি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button