এপ্রিল ১১, ২০২১ ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ ||২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ||২৭শে শাবান, ১৪৪২ হিজরী

৩০ নভেম্বরই শেষ আয়কর রিটার্নের দাখিল,  সময় বাড়ছে না

আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় আর বাড়ানো হবে না। আগামী ৩০ নভেম্বর, ২০২০ সোমবার রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ দিন।

রোববার (২৯ নভেম্বর, ২০২০) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে সংস্থার চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, যারা আয়কর রিটার্ন জমা দিবেন তাদের নির্ধারিত তাদের ৩০ নভেম্বরের মধ্যেই রিটার্ন জমা দিতে হবে। তবে আবেদন সাপেক্ষে করদাতারা চাইলেই সময় বৃদ্ধি করতে পারবেন। এক্ষেত্রে কর কমিশনারদের নির্দেশনা দেওয়া আছে, যে সময় বৃদ্ধির আবেদন পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যেন রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় দেন।

তিনি বলেন, আবেদন বিবেচনা করে জরিমানা মওকুফ করতে পারবেন কর কমিশনার। এ বিষয়ে তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাসের কারণে এবার কর মেলা হয়নি। তবে প্রতিটি কর অঞ্চল কার্যালয়ে কর মেলার সুবিধা রয়েছে। এ অবস্থায় ৩০ নভেম্বর রিটার্ন জমার সময় শেষ হচ্ছে। বিদ্যমান আয়কর অধ্যাদেশে রিটার্ন জমার সময় বাড়ানোর সরাসরি কোনো সুযোগ নেই।

নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিটার্ন দিতে না পারলে যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে দুই থেকে চার মাস পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে নেওয়া যায়। এজন্য নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হয়। তখন একজন কর কর্মকর্তা আয়কর অধ্যাদেশ অনুযায়ী জরিমানা, করের ওপর ৫০ শতাংশ অতিরিক্ত সরল সুদ কিংবা করের টাকার ওপর মাসিক ২ শতাংশ হারে বিলম্ব সুদ আরোপ করতে পারবেন। আবেদন করে সময় পেলেও বিলম্ব সুদ দিতে হবে, জরিমানা দিতে হবে না।

বর্তমানে দেশে ৪৬ লাখ কর শনাক্তকারী নম্বরধারী (টিআইএন) আছেন। তাদের মধ্যে ২২ লাখের মতো টিআইএনধারী রিটার্ন দেন।

কয়েক বছর আগেও প্রতিবার রিটার্ন জমার সময় বাড়ানো হতো। কিন্তু ২০১৬ সালে আয়কর অধ্যাদেশে পরিবর্তন এনে ৩০ নভেম্বর জাতীয় কর দিবসের পর রিটার্ন জমা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সময় বাড়ানোর পথটি বন্ধ হয়ে যায়।

About Md Uzzal