সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ ||১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ||৭ই সফর, ১৪৪২ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্রে দাবানলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩ পুড়ে গেছে ঘরবাড়িও

যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূলীয় রাজ্যগুলোতে ভয়াবহ দাবানল প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকায় ছড়িয়ে পড়ছে। যা নিয়ন্ত্রণ করতে দমকল বাহিনীর কর্মীদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর. ২০২০) সকালে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, গত তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে ক্যালিফোর্নিয়া, ওরিগন ও ওয়াশিংটন রাজ্যের বিস্তৃত এলাকা।

তীব্র বাতাস ও শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে দাবানল ছড়িয়ে পড়ায় ঘরবাড়ি, বনাঞ্চল, ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। দাবানলে রাজ্যগুলোতে প্রাণহানি বেড়ে ৩৩ জনে দাঁড়িয়েছে সেই সাথে পুড়ে গেছে ঘরবাড়িও। হাজার হাজার মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন। নিখোঁজ রয়েছেন বহু মানুষ।

এদিকে দাবানল ছড়িয়ে পড়ায় ওরিগন এবং ক্যালিফোর্নিয়ার কয়েকটি কাউন্টিতে ‘রেড ফ্ল্যাগ ওয়ার্নিং’ জারি করেছে জাতীয় আবহাওয়া কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে নতুন নতুন এলাকায় দ্রুত দাবানল ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছে।

ওরিগনের গভর্নর কেট ব্রাউন রাজ্যে বেশ কয়েকজন নিখোঁজ থাকার কথা নিশ্চিত করেছেন। বিশেষ করে জেকসন, লেন এবং মারিয়ন কাউন্টিতে লোকজন নিখোঁজ রয়েছেন।

ক্যালিফোর্নিয়ায় আগস্টের মাঝামাঝি সময় থেকে এখন পর্যন্ত দাবানলে অন্তত ৩৩ লাখ একর বনভূমি পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছে রাজ্যের বন ও অগ্নি নিয়ন্ত্রণ বিভাগ।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আন্তঃসংযোগ দমকল কেন্দ্র জানিয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়ায় ২৫টি, ওয়াশিংটনে ১৬টি, ওরিগনে ১০টি এবং আইডাহেতে ১০টি স্থান দাবানলে পুড়ছে। এছাড়া আলাস্কা, অ্যারিজোনা, কলোরাডো, নেভাডা, নিউ ম্যাক্সিকো, উথ এবং ওমিংয়ে দাবানল ছড়িয়ে পড়ছে।

অন্যদিকে, দাবানলের জন্য শুষ্ক বাতাস এবং জলবায়ু পরিবর্তনকে দায়ী করেছেন রাজ্যগুলোর ডেমোক্র্যাট দলের তিন নেতা। আসন্ন মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে দাবানলের বিষয়টি সম্পৃক্ত বলে উল্লেখ করেছেন।

About Md Uzzal