এপ্রিল ১১, ২০২১ ২:০৭ পূর্বাহ্ণ ||২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ||২৭শে শাবান, ১৪৪২ হিজরী

বাসর রাতেই নববধূ মৃত্যু

নববধূ আঁখি খাতুন (২০) সাজ-সজ্জা, মেহেদীতে রাঙানো হাত আর আলতা মাখানো পায়ে বিয়ের রাতেই লাশ হয়ে ফিরলেন । বিয়ের তিন ঘণ্টা পর নববধূর রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে তোলপাড়।
বৃহস্পতিবার ভোর রাতে উপজেলার ব্রহ্মগাছা ইউনিয়নের কালিয়াবীর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত আঁখি খাতুন একই গ্রামের আব্দুল মমিনের স্ত্রী ও সিরাজগঞ্জ সদর এলাকার রানীগ্রামের আবু বক্করের মেয়ে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার রানীগ্রামের আবু বক্করের মেয়ে আঁখি খাতুনের সাথে রায়গঞ্জের কালিয়াবীর গ্রামের রওশন আলীর ছেলে আব্দুল মমিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। আনন্দ-উৎসবের মধ্য দিয়ে রাতে নববধূ শ্বশুর বাড়িতে পা রাখেন। তিন ঘন্টা পর মধ্যরাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন নববধূ আঁখি। দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেল ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এমনটিই দাবি করছে বরপক্ষ।এ বিষয়ে ব্রহ্মগাছা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান গোলাম ছরওয়ার লিটন জানান, কালিয়াবীর গ্রামের বাসিন্দা আব্দল মমিন গতকাল বুধবার রাতে নববধূ আঁখি খাতুনকে বিয়ে করে বাড়ি নিয়ে আসে। এরপর মধ্যরাতে নববধূ অসুস্থ হলে বরপক্ষ দ্রুত সিরাজগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক।
এ খবর শুনে নববধূর আত্মীয়-স্বজনেরা বৃহস্পতিবার সকালে বরের বাসা থেকে নিহত আঁখি খাতুনের মৃতদেহ নিয়ে গেছে।
রায়গঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবুর আলম জানান, নিহতের পরিবার থেকে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। লাশ বিকালে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

About uzzal uzzal