আগস্ট ৪, ২০২০ ৫:২৯ পূর্বাহ্ণ ||২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ||১২ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

দুই ফুটবলার মাস্ক ছাড়া চুল কাটালেন, দিলেন জরিমানা

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হওয়ার আগেই শুরু হয়েছে জার্মানির শীর্ষ পর্যায়ে ঘরোয়া ফুটবল লিগ বুন্দেসলিগা। আগামী সপ্তাহ থেকে মাঠে গড়াবে স্প্যানিশ প্রিমিয়ার লিগ। আর চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে শুরু হয়ে যাবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ’ও।

এখনও মহামারী আতঙ্ক পুরোপুরি কেটে না যাওয়ায় বেশ কড়াকড়ি নিয়মের মধ্যেই খেলতে হচ্ছে ক্লাবগুলোকে, মানতে হচ্ছে সামাজিক দূরত্ব আইন। এরই মধ্যে চুল কাটাতে নরসুন্দরের কাছে গিয়ে বিপাকে পড়লেন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের দুই তারকা ফুটবলার জ্যাডন সানচো এবং ম্যানুয়েল আকাঞ্জি।

বরুশিয়া তাদের সবশেষ ম্যাচে জিতেছে ৬-১ গোলের বড় ব্যবধানে। সে ম্যাচে একাই তিন গোল অর্থাৎ হ্যাটট্রিক করেছিলেন সানচো। করোনার পর ফেরা ফুটবলে প্রথম হ্যাটট্রিক তারই। কিন্তু এই সুখস্মৃতি বেশিদিন স্থায়ী হলো না সানচোর।

কেননা চুল কাটাতে গিয়ে সানচোর একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, নরসুন্দরের সামনে বসে চুল কাটাচ্ছেন তিনি, কিন্তু মুখে নেই মাস্ক। একই দোষে দোষী হয়েছেন সানচোর সতীর্থ আকাঞ্জিও।

এটিকে স্বাস্থ্যবিধির লঙ্ঘন হিসেবে উল্লেখ করে জরিমানা ও মৌখিক সতর্কতা দেয়া হয়েছে এ দুই ফুটবলারকে। তবে জরিমানার অংক প্রকাশ করেনি জার্মান ফুটবল কর্তৃপক্ষ (ডিএফএল)। তাদের মতে, মাস্ক ছাড়া চুল কাটাতে গিয়ে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করেছেন সানচো এবং আকাঞ্জি।

কিন্তু ডিএফএলের এ সিদ্ধান্ত কোনভাবেই মানতে পারছেন না ২০ বছর বয়সী সানচো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে রাগ প্রকাশ করে এ সিদ্ধান্তকে হাস্যকর বলে টুইট করেছিলেন তিনি। যদিও পরে এটি মুছে দিয়েছেন এ তরুণ তারকা।

এক্ষেত্রে নিজ ক্লাব বরুশিয়াকে পাশে পাচ্ছেন সানচো ও আকাঞ্জি। তারা ডিএফএলকে জানিয়েছে, ক্লাবের দুই খেলোয়াড় বুন্দেসলিগার স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার কোন নির্দেশনা অমান্য করেনি। এতে অবশ্য জরিমানা মওকুফ করা হয়নি সানচো-আকাঞ্জির।

About Md Uzzal