এপ্রিল ৮, ২০২০ ৯:৩২ অপরাহ্ণ ||২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ||১৪ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

সরকারি চাকরিতে অষ্টম গ্রেড থেকে ওপরের পদে কোটা থাকবে না

সরকারি চাকরিতে ননক্যাডারভুক্ত ৮ম গ্রেড এবং এর ওপরের গ্রেডের যেকোনও পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা পদ্ধতি থাকবে না বলে জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সোমবার (২০ জানুয়ারি) নন-ক্যাডার ৮ম ও এর ওপরের গ্রেডের পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা পদ্ধতি স্পষ্টীকরণ করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের তোলা এ সংক্রান্ত পরিপত্র সংশোধনের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। রাজধানীর তেজগাঁওস্থ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।
বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কাছে বিষয়টি সম্পর্কে পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি) পরিষ্কার ধারণা জানতে চাইলে বিষয়টি মন্ত্রিপরিষদের সভায় তোলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। কোটা বাতিলের বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রের স্পষ্টকরণের জন্য বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি) প্রস্তাব পাঠালে অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের তোলা বিষয়ের ওপর মন্ত্রিসভা বৈঠকে বলা হয়, ‘৮ম গ্রেড থেকে এর ওপরের অর্থাৎ ৭ম, ৬ষ্ঠ, ৫ম, ৪র্থ, ৩য়, ২য় ও ১ম গ্রেড পর্যন্ত নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনও কোটা থাকবে না।’
এ সময় মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয় থেকে গত ৩ ফেব্রুয়ারি নন ক্যাডার ৮ম ও এর ওপরের গ্রেডের পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ করা হবে, নাকি আগের কোটা পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে, বিষয়টি স্পষ্টকরণের জন্য অনুরোধ করা হয়।’
উল্লেখ্য, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা পদ্ধতি বাতিল করে পরিপত্র জারি করে। সেখানে বলা হয়, ৯ম গ্রেড (আগের প্রথম শ্রেণি) এবং ১০ম থেকে ১৩ম গ্রেডের (আগের দ্বিতীয় শ্রেণি) পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে। ৯ম গ্রেড ও ১০ম থেকে ১৩ম গ্রেডের (আগের দ্বিতীয় শ্রেণি) পদে সরকারি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা পদ্ধতি বাতিল হয়।
সচিব বলেন, ‘আগে জারি করা পরিপত্রে ৯ম গ্রেড (আগের প্রথম শ্রেণি) এবং ১০ম থেকে ১৩ম গ্রেডের (আগের দ্বিতীয় শ্রেণি) পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা পদ্ধতি বাতিল করা হলেও আগের ১ম শ্রেণিভুক্ত ৮ম ও তদূর্ধ্ব গ্রেডের পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা বণ্টন পদ্ধতি কী হবে, সে বিষয়ে স্পষ্ট কোনও নির্দেশনা নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘‘বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন ৯ম গ্রেড এবং ১০ম থেকে ১৩তম গ্রেড ছাড়াও ৮ম ও তদূর্ধ্ব গ্রেডের কোনও কোনও পদে সরাসরি নিয়োগ দেয়। ‘জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫’ এ শ্রেণির পরিবর্তে গ্রেড উল্লেখ করা হয়েছে এবং আগের ১ম শ্রেণির পদ বলতে ৯ম ও তদূর্ধ্ব গ্রেডের পদকে বেআঝানো হয়।’’
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রে ‘৯ম গ্রেড’-এর স্থলে ‘৯ম ও তদূর্ধ্ব গ্রেড’ উল্লেখ করে পরিপত্রটির সংশোধন প্রয়োজন বলে প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়।
মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত দিয়েছে, ৯ম থেকে যত ওপরের দিকের যাক, সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনও কোটা পদ্ধতি থাকবে না বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

About Md Uzzal