এপ্রিল ৩, ২০২০ ৪:৩১ অপরাহ্ণ ||২০শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ||৯ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

ইয়েমেনে মসজিদে ড্রোন হামলা, নিহত ৮৩

ইয়েমেনে একটি সামরিক শিবিরে অবস্থিত মসজিদকে লক্ষ্য করে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৮৩ জনেরও বেশি সেনা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৪৮ জন। সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে একথা জানিয়েছে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি।

সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের সঙ্গে ২০১৫ সাল থেকে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীরা। আন্তর্জাতিক সমর্থনপুষ্ট সরকারকে হটিয়ে হুথি বিদ্রোহীরা রাজধানী দখল করে নিলে এই সংঘাত শুরু হয়। ইয়েমেন যুদ্ধকে আঞ্চলিক শক্তি ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যকার ছায়াযুদ্ধ হিসেবে দেখে থাকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়।

কর্মকর্তারা বলেন, রাজধানী সানা থেকে ১৭০ কিলোমিটার দূরে হুথি বিদ্রোহীরা মাদ্রিবের সামরিক শিবিরে থাকা একটি মসজিদে মাগরিবের নামাজের সময় হামলা চালায়। আর মারিবের হাসপাতাল সূত্র জানায়, হামলায় ৮৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৪৮ জন।

তবে এই হামলার দায় স্বীকার করেনি হুথি বিদ্রোহীরা। রাজধানী সানাসহ ইয়েমেনের বড় শহরগুলোর নিয়ন্ত্রণ রয়েছে হুথি বিদ্রোহীদের কাছে। তাদের দাবি ইরানের পুতুল হয়ে নয় বরং একটি দুর্নীতিবাজ ব্যবস্থার বিরুদ্ধে লড়াই করছে তারা।

একদিন আগেই হুথিদের বিরুদ্ধে বড় আকারের অভিযান শুরুর ঘোষণা দেয় সৌদি জোট সমর্থিত সরকার। সেই অভিযানে অনেক হুথি সদস্য নিহত হয়েছে বলেও দাবি করা হয়।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সাবার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট আবেদ্রাবো মানসুর হাদি মসজিদের এই হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘হুথিদের এই হামলা প্রমাণ করে যে তারা শান্তি চায় না।’

About Md Uzzal