নভেম্বর ১৪, ২০১৯ ৯:৪৪ পূর্বাহ্ণ ||২৯শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ||১৬ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

চার ধর্ষককে মারধর করে তাড়িয়ে দিয়ে নিজেই গৃহবধুকে ধর্ষন করল ছাত্রলীগ নেতা

আলোচিত ডেস্ক//

ভোলায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণকারী চারজনকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়ার পর এক ছাত্রলীগ নেতা ওই গৃহবধূকে আবার ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে উপজেলার চরপিয়ালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চার পুরুষ যাত্রীর সঙ্গে স্পিডবোর্ডে করে আড়াই বছরের শিশু নিয়ে এক গৃহবধু চরফ্যাশনের বেতুয়া লঞ্চঘাট থেকে  মনপুরায়  যাচ্ছিলেন। স্পিডবোর্ডটি চরপিয়ালে আসলে চালককে জিম্মি করে  চার যুবক  গৃহবধুকে চরের মধ্যে নিয়ে ধর্ষন করে।  এ সময় চালক স্পিডবোর্গের মালিককে জানায়। খবর পেয়ে স্পিডবোটের মালিক সাকুচিয়া ইউনিয়নের সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি নজরুল আরেকটি  স্পিডবোট নিয়ে চরপিয়ালে আসেন। এ সময় তিনি ওই চার ধর্ষককে মারধর করে তাদের কাছে থাকা ৩ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন। এরপর নজরুল নিজে ওই গৃহবধূকে চরের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

ঘটনাটি চরের মহিষের রাখালরা দেখে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে জানায়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চেয়ারম্যান চরপিয়াল থেকে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে মনপুরায় নিয়ে আসেন।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে মনপুরা থানায় ওই গৃহবধূ মনপুরা উপজেলার সাকুচিয়া ইউনিয়নের সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম (৩০), বেলাল পাটোয়ারী (৩৫), মো. রাসেদ পালোয়ান (২৫), শাহীন খান (২২) এবং কিরণকে (২৬) আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন।

ভিকটিম জানান, নজরুল তাকে ধর্ষণের সময় তা ভিডিও করে এবং বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেয়। কাউকে কিছু বললে ওই ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ারও হুমকি দেয়।

মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন জানান, ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। তিনি বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন। ///

About Md Uzzal