October 15, 2019 5:20 AM

সম্রাট হাসপাতালে।।বুকে ব্যথা

ঢাকা দক্ষিনের বহিস্কৃত যুবদলের সভাপতি ক্যাসিনো ইসমাঈল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে অসুস্থতার কারণে প্রথমে ঢাকা মেডিক্যালে ও পরে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকাল ৬টার দিকে সম্রাট অসুস্থ হয়ে পড়েন।  সকাল সাড়ে সাতটায় তাকে কারাগার থেকে ঢামেকে আনার পর নতুন ভবনের তৃতীয় তলায় সিসিইউতে রাখা হয়। পরে সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে চিকিৎসার জন্য তাকে আগারগাঁওয়ে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে  নিয়ে যাওয়া হয়। তার সঙ্গে রয়েছেন কারারক্ষী সুবেদার মো. মুজাহিদুল ইসলাম।

কারারক্ষী মো. মোজাহিদুল ইসলাম আলোচিত খবরকে বলেন, ‘বুকে ব্যথা অনুভব করায় তাকে (সম্রাটকে) হাসপাতালে আনা হয়েছে। এখন হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে তার পরীক্ষা- নিরীক্ষা চলছে।’

উল্লেখ্য,  ‘রবিবার (৬ অক্টোবর) ভোরের দিকে  ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে তার সহযোগী আরমানসহ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এরআগে গত ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে রাজধানীতে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু করে র‌্যাব। ওইদিনই রাজধানীর ফকিরাপুল ইয়ংমেন্স ক্লাবের ক্যাসিনোয় অভিযান চালানোর পাশাপাশি গুলশান থেকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর ২০ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) নিকেতনে নিজের অফিস থেকে গ্রেফতার করা হয় যুবলীগ নেতা জিকে শামীমকে। যুবলীগের এই দুই নেতাকে গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ, মাদক ও আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ করা হয়।

ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ক্যাসিনো পরিচালনা করে বিপুল পরিমাণ অর্থ উপার্জনের অভিযোগ রয়েছে। ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের প্রথম দিন থেকেই সম্রাট কয়েকশ’ নেতাকর্মী নিয়ে কাকরাইলে তার নিজ কার্যালয়ে অবস্থান নেন। পরে তার অবস্থান ও আটক নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়। এরই মধ্যে গত ২৩ সেপ্টেম্বর তার ব্যাংক হিসাব স্থগিত ও তলব করা হয়। ২৪ সেপ্টেম্বর তার বিদেশ গমনে জারি করা হয় নিষেধাজ্ঞা।

 

About Md Uzzal