নভেম্বর ২২, ২০১৯ ৬:৪৪ পূর্বাহ্ণ ||৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ||২৪শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

আবরার ফাহাদের মরদেহ কুষ্টিয়ায় নিজ বাড়ীতে

ঢাকায় নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের মরদেহ কুষ্টিয়ায় বাড়ীতে পৌছালে সেখানে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। রাতে প্রথম জানাজা শেষে ঢাকা থেকে কুষ্টিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয় আবরার মরদেহবাহী গাড়ী। আজ মঙ্গলবার ভোর ৬টায় কুষ্টিয়ার পিটিআই রোডে নিজ বাড়ীতে পৌঁছালে সেখানে লাশের অপেক্ষারত স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। মা-বাবাসহ পরিবার পরিজনের কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে পিটিআই রোডের আকাশ-বাতাশ।

সুষ্ঠ তদন্ত করে অতিদ্রুত নির্মম এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের সর্বো”্চ শাস্তির দাবী জানানো হয় আবরার পরিবারের পক্ষ থেকে। এলাকাবাসীরা বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে শেষবারের মত দেখতে বাড়ীতে ভীড় জমিয়েছেন। সবাই এই হত্যার বিচার দাবী করেন। এই নৃশংস হত্যার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী জানান বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারাও।

এরপর সকাল সাড়ে ৬টায় পিটিআই রোডস্থ আল-হেরা জামে মসজিদের সামনের রাস্তায় ২য় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত নামাজের জানাজায় কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা, নিহত আবরার পরিবার, এলাকাবাসী এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করেন। সকাল ১০টায় গ্রামের বাড়ী কুমারখালীর কয়া ইউনিয়নের রায়ডাঙ্গা গোরস্থানে ৩য় জানাজা শেষে নিহত আবরার লাশ দাফন করা হবে। মরদেহ এখন সেখানেই রয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে (২১) পিটিয়ে হত্যা করা হয়। রবিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই-বাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর ময়না তদন্ত শেষে সোমবার রাত ১০টায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

About Md Uzzal