August 24, 2019 6:23 AM

এশিয়া কাপে স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় পুড়লো বাংলাদেশ

এশিয়া কাপে আবারো স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় পুড়লো বাংলাদেশ। রোমাঞ্চকর ফাইনালে শেষ বলে ভারতের কাছেই হার মানলো টাইগাররা। ৩ উইকেটের জয়ে, শিরোপা ধরে রাখলো টিম ইন্ডিয়া। মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় বৃথা গেলো, লিটন দাসের প্রথম সেঞ্চুরি।

২২৩ রানের লক্ষ্যে নেমে ৩৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভারত। তবে দলীয় ৪৬ রানের মধ্যে শিখর ধাওয়ান ও আম্বাতি রাইডুকে আউট করে, লড়াই করার আভাস দেন টাইগাররা।

এরপর ছোট ছোট জুটিতে লক্ষ্যের দিকে এগোতে থাকে ভারত। রোহিত শর্মার ৪৮, দিনেশ কার্তিকের ৩৭ ও ধোনির ৩৬ রান, মূল্যবান বিবেচিত হয় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের জন্য।১৬০ রানে ৫ উইকেট তুলে নিয়ে, খেলায় থাকে বাংলাদেশ। বোলারদের দৃঢ়তায় রান তুলতে ব্যাটসম্যানদের ঘাম ছোটা, উত্তেজনা ছড়ায় গ্যালারিতে।

কিন্তু ভুবনেশ্বর কুমারকে নিয়ে সপ্তম উইকেটে রবীন্দ্র জাদেজার ঠা-া মাথার ৪৫ রানের জুটি, ম্যাচ থেকে পুরোপুরি ছিটকে দেয় বাংলাদেশকে। শেষবেলায় জাদেজাকে ফিরিয়ে উত্তেজনার ষোলো কলা পূর্ণ করলেও, শেষ বলে ১ রান নিতে যাদবকে বিরত রাখতে পারেননি মাহমুদুল্লাহ।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রতিশ্রুতিশীল শুরু এনে দেন, লিটন দাস ও মেহেদী মিরাজের ব্যতিক্রমী জুটি। এবারের এশিয়া কাপে প্রথমবারের মতো পঞ্চাশের পর একশ’ পার করে উদ্বোধনী উইকেট। ভুবনেশ্বর, ভুমরাহ, চাহাল, জাদেজার ব্যর্থতায়, চিন্তার ভাজ পড়ে ভারতীয়দের কপালে। তবে সফল হন কেদার যাদব। দলীয় ১২০ রানে, ৩২ করা মিরাজ বোকা বনেন স্পিনে। হঠাৎই মোরক লাগে টাইগার শিবিরে। ৩১ রান যোগ করতেই আরো ৪ উইকেট খুইয়ে বসে বাংলাদেশ। শক্ত ভিত্তির ওপর রানের প্রাসাদ নির্মাণ করার পরিবর্তে, বুদ্ধিহীনতার প্রমাণ দিয়ে উইকেট উপহার দেন, মুশফিক-রিয়াদরা। ভেস্তে যায় টাইগারদের বড় স্কোরের আশা।

একপ্রান্তে দাঁড়িয়ে সতীর্থদের আত্মাহুতি দেয়া দেখেন ক্যারিয়ারের সেরা ইনিংস খেলা লিটন। স্টাইলিস এ ব্যাটসম্যান তুলে নেন প্রথম সেঞ্চুরিও। ষষ্ঠ উইকেটে সৌম্য সরকারকে নিয়ে একটা কার্যকর জুটি গড়ার দিকে এগোতে থাকলেও, পরিণতি দিতে পারেনি। তাই টাইগারদের দলীয় স্কোরও পেলো না চ্যালেঞ্জিং তকমা। তিনটি রানআউট নির্বুদ্ধিতাকে নতুন মাত্রা দেয়। দুই অঙ্কের ঘরও ছুতে পারেননি, আটজন ব্যাটসম্যান। স্বপ্নীল শুরুর শেষটা হলো বেদনাময়। তৃতীয়বারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনাল থেকে, শূণ্য হাতে ফিরতে হলো টাইগারদের।

About