October 14, 2019 9:30 AM

কি সুখবর শেয়ারবাজারের জন্য ?

আলোচিত অনলাইন
ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ (ক্যাশ রিজার্ভ রেশিও বা সিআরআর) সাড়ে ছয় শতাংশ থেকে এক শতাংশ কমিয়ে সাড়ে পাঁচ শতাংশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সরকারি আমানতের ৫০ শতাংশ বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ সংবাদে দেশের শেয়ারবাজারে দেখা দিয়েছে উল্লম্ফন। টানা তিন কর্যদিবসে মূল্যসূচকে বড় উত্থান হয়েছে।
সিআরআর কমানো এবং বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে সরকারের আমানত বাড়ানোর সিদ্ধান্তের কারণে বাজারে তারল্য বাড়বে এবং ব্যাংক খাতে দেখা দেয়া অর্থসঙ্কট কেটে যাবে- এমন গুঞ্জন ছড়ানোর কারণে এমন উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন এ ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা। এতে আমানতের সুদহার কমে যাবে এবং এক শ্রেণির বিনিয়োগকারী শেয়ারবাজারে প্রবেশ করবে বলে ধারণা তাদের।
তবে অর্থনীতিবিদরা বলছেন, সিআরআর কমানো এবং বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে সরকারের আমানত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক। এতে সার্বিক আর্থিক খাতে ঝুঁকি বাড়বে। বেড়ে যাবে খেলাপি ঋণের পরিমাণ। আর শেয়ারবাজারে প্রাথমিকভাবে ইতিবাচক প্রভাব পড়লেও, বাস্তবে এ সিদ্ধান্তের সঙ্গে শেয়ারবাজারের তেমন সম্পর্ক নেই।
ব্যাংক খাতের তারল্য সঙ্কট এবং শেয়ারবাজারের মন্দা অবস্থা থেকে উত্তরণের উপায় নিয়ে গত রোববার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে বেসরকারি ব্যাংক উদ্যোক্তাদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্সের (বিএবি) সঙ্গে বৈঠক করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এ সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান, বাংলাদেশ ব্যাংকের উপদেষ্টা এস কে সুর চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন।

ওই বৈঠকের পর অর্থমন্ত্রী জানান ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ সাড়ে ৬ শতাংশ থেকে এক শতাংশ কমিয়ে সাড়ে ৫ শতাংশ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সুদের হার কমানোর চেষ্টা করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, এরই অংশ হিসেবে বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে সরকারি প্রতিষ্ঠানের আমানত ৫০ শতাংশ রাখা হবে। ইতোমধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।
এত পরিমাণ টাকা বেসরকারি ব্যাংকগুলোর কাছে দেয়া হলে মূল্যস্ফীতি বাড়বে কিনা- জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী সে আশঙ্কা উড়িয়ে দেন। তিনি বলেন, ‘মূল্যস্ফীতি বাড়বে না, কোনোভাবেই বাড়বে না। নীতিমালা অনুযায়ী এতদিন সরকারি আমানতের মাত্র ২৫ শতাংশ বেসরকারি ব্যাংকে রাখার বিধান ছিল। আর আমানতের ৭৫ শতাংশ রাখা হয় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে। এখন থেকে সরকারি আমানতের ৫০ শতাংশ পাবে বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো।’
অর্থমন্ত্রীর ওই ঘোষণার আগে বৃহস্পতিবার শেয়ারবাজারে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে ব্যাংকগুলোর তারল্য বাড়াতে বড় ধরনের সুযোগ দিতে যাচ্ছে সরকার। সেই সঙ্গে সিআরআর হারও কমানো হচ্ছে। এ গুঞ্জনে ভিত্তি করে টানা পতন থেকে বেরিয়ে বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইক্স বাড়ে ১০৮ পয়েন্ট। পরের কার্যদিবস রোববার বাড়ে ১৪৯ পয়েন্ট এবং সোমবার বাড়ে ৮০ পয়েন্ট। অর্থাৎ টানা তিন কার্যদিবসে ডিএসইএক্স বেড়েছে ৩৩৭ পয়েন্ট।

About