নভেম্বর ২২, ২০১৯ ৭:০০ পূর্বাহ্ণ ||৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ||২৪শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

বিজিবি সদস্য সুমন বাবা-মার পাশে শায়িত

লালমনিরহাটের দহগ্রাম সীমান্তে চোরাকারবারীদের ধরতে গিয়ে তিস্তা নদীতে পড়ে প্রাণ হারানো বিজিবির ল্যান্স নায়েক হবিগঞ্জের সুমন মিয়াকে অশ্রুসিক্ত নয়নে বিদায় জানিয়েছে হাজার হাজার লোকজন। আজ ৩০ জুন সকাল ৯টায় হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল ইউনিয়নের আটঘরিয়া গ্রামে জানাজা শেষে মা-বাবার কবরে পাশে তাকে দাফন করা হয়।

এর আগে রাত ১টার দিকে বিজিবি সদস্যরা তার মরদেহ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসে এবং পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন। জানাজা নামাজের আগে বক্তব্য দেন হবিগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমদুল হক, পইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ মঈনুল হক আরিফ, সাবেক চেয়ারম্যান সাহেব আলী, মেজর শাফি, সুমনের বড় ভাই আব্দুল কবির প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (২৭ জুন) ভোরে চোরাকারবারীদের ধরতে গিয়ে লালমনিরহাট জেলার দহগ্রাম সীমান্তের তিস্তা নদীতে ডুবে নিখোঁজ হন বিবিজির ল্যান্স নায়েক সুমন। পরদিন ভারতের কোচবিহার এলাকায় তার মরদেহ উদ্ধার করে বিএসএফ। এরপর বিজিবির কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়।

About uzzal uzzal